Uncategorized

অনলাইনে ভিক্ষা করে ৫০ হাজার মার্কিন ডলার আয়-অনলাইন ডেস্ক

অনলাইনে প্রতারণা বিষয়ে সতর্ক থাকা উচিত।গত রমজান মাসে অনলাইনে ভিক্ষাবৃত্তির জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাতের পুলিশের হাতে আটক হয়েছেন ইউরোপের এক নারী। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছেলের ছবি দিয়ে তাকে ভরণপোষণের জন্য অর্থসাহায্য চাইতেন তিনি। এতে মাত্র ১৭ দিনে ৫০ হাজার মার্কিন ডলারের বেশি আয় করেন ওই নারী। গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

পুলিশ বলছে, অনলাইন ভিক্ষাবৃত্তি সেখানে অপরাধ। তা ছাড়া ওই নারী প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে ভিক্ষা করেছেন। নিজেকে তিনি তালাকপ্রাপ্ত নারী হিসেবে তুলে ধরেন। সন্তানের পাশে দাঁড়ানোর জন্য বিভিন্ন মাধ্যমে আবেদন করেন। এতে তাঁর স্বামী অভিযোগ করেন ও দাবি করেন, সন্তান ওই নারীর কাছে নেই। সন্তানের ভরণপোষণ করছেন তিনি। ওই নারী প্রতারণা করে সন্তানের ছবি পোস্ট করে ভিক্ষা করছেন।

গত রোববার দুবাই পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, ওই নারী টুইটার, ইনস্টাগ্রাম ও ফেসবুকে নানা পোস্ট দিয়ে অর্থসাহায্যের আবেদন করেন। তবে ওই নারীর বয়স ও জাতীয়তা প্রকাশ করেনি পুলিশ।

দুবাই পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জামাল আল সলিম আল জালাফ বলেন, ওই নারী অনলাইনে অ্যাকাউন্ট খুলে তাতে সন্তানের ছবি দিয়ে তাকে বড় করার জন্য অর্থসাহায্য চান। তিনি ডিভোর্সের পর নিজে সন্তান পালন করছেন। কিন্তু তাঁর সাবেক স্বামী ই-ক্রাইম প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে অভিযোগ করেন এবং সন্তান তাঁর কাছে থাকার প্রমাণ দেন। ওই ব্যক্তি বুঝতে পারেন, তাঁর সন্তানের ছবি অনলাইনে পোস্ট করে অর্থ আয়ের জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে।

সলিম আল জালাফ বলেন, অনলাইনে ভিক্ষাবৃত্তির জন্য ই-ক্রাইম প্ল্যাটফর্মে অভিযোগ জানানো যায়। মানুষ যাতে মহানুভবতার সুযোগ নিতে না পারে, এ জন্য অনলাইনে দান করার আগে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান তিনি।

গত রোজার মাসে দেশটিতে ১২৮ ভিক্ষুককে আটক করা হয়েছে।

দুবাই পুলিশের সাইবার অপরাধ বিভাগের ডেপুটি পরিচালক ক্যাপ্টেন আবদুল্লাহ আল সেহি বলেন, অনলাইনে ভিক্ষা করা দেশটিতে শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এতে জেল বা জরিমানার বিধান রয়েছে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close