• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০১:১৪ পূর্বাহ্ন

শিশুকে গাছে বেঁধে নির্যাতন: সেই মা-ছেলে আটক

Reporter Name / ৮৮ বার পঠিত
আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১

১০ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে রিফাত (৯) নামের দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় মা-ছেলেকে আটক করেছে পুলিশ।

মা-ছেলেকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হালিম সিদ্দিকী।

আটকরা হলেন- ফাতেমা বেগম (৪৫) ও তার ছেলে হিমেল (২৫)। ফাতেমা ডৌহাখলা ইউনিয়নের তাতকুড়া গ্রামের মৃত বারেকের স্ত্রী।

নির্যাতনের শিকার রিফাত রামগোপালপুর ইউনিয়নের মধুবন আদর্শ গ্রামের সুরুজ মিয়ার ছেলে। সে স্থানীয় রামগোপালপুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র।

ওসি আব্দুল হালিম সিদ্দিকী বলেন, বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে অফিসার পাঠানো হয়। ঘটনার সত্যতা পাওয়ার পর নির্যাতনকারী মা ও ছেলেকে আটক করে থানায় আনা হয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

শুক্রবার (৪ জুন) দুপুরে রামগোপালপুর ইউনিয়নের মধুবন আদর্শ গ্রামে (গুচ্ছগ্রাম) এ নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। বিষয়টি স্থানীয়দের মাঝেই গোপন থাকে। পরে নির্যাতনের ভিডিওটি ফেসবুকে শেয়ার দিলে তা ছড়িয়ে পড়ে।

নির্যাতনের শিকার রিফাতের বাবা সুরুজ মিয়া বলেন, গতমাসের শেষের সপ্তাহে ফাতেমা বেগমের ভাইয়ের স্ত্রী রিফাতকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গাছ থেকে আম পেড়ে দিতে বলেন। রিফাত আম পাড়ার জন্য গাছে উঠলে ফাতেমা ও তার ছেলে হিমেল রিফাতকে গাছ থেকে নামান। পরে তাকে পিটিয়ে আহত করা হয়। এরপর থেকে রিফাত সপ্তাহখানেক জ্বরে ভোগে।

তিনি বলেন, জ্বর কিছুটা সেরে উঠলে গত শুক্রবার আমি বাড়িতে না থাকায় ফাতেমার ছেলে হিমেল রিফাতকে বাড়ি থেকে নিয়ে গাছের সঙ্গে গরুর রশি দিয়ে বেঁধে মারধর করেন। পরে আমি বাড়িতে ফিরে বিষয়টি জানতে পেরে তাদের বাড়িতে গিয়ে রশি খুলে ছেলেকে বাড়িতে নিয়ে আসি। গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিদের বিষয়টি জানালে তারা বিচারের আশ্বাস দেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

পুরাতন সংবাদ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০