• শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ০৪:৫৪ অপরাহ্ন

গণমাধ্যমে তথ্যদানে নিষেধাজ্ঞা তথ্য অধিকার আইনের পরিপন্থী: ডিআরইউ

ডেস্ক রিপোর্ট / ১০ বার পঠিত
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৯ জুলাই, ২০২১

০৯ জুলাই ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক কর্মকাণ্ড এবং রোগী ও রোগীদের সম্পর্কে গণমাধ্যমে তথ্যদানে সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ, নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি- ডিআরইউ।

শুক্রবার (৯ জুলাই) এক বিবৃতিতে ডিআরইউ কার্যনির্বাহী কমিটির পক্ষে সভাপতি মুরসালিন নোমানী বলেন, ৮ জুলাই ঢাকার সিভিল সার্জন ডা. আবু হোসেন মো. মঈনুল আহসান স্বাক্ষরিত এক নির্দেশনায় সরকারি হাসপাতালে রোগীর সেবা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্মকাণ্ড নিয়ে গণমাধ্যমে কোনো প্রকার তথ্য প্রদান ও মন্তব্য না দিতে বলা হয়েছে। সিভিল সার্জনের এ নির্দেশনায় ডিআরইউ নেতৃবৃন্দ ক্ষুদ্ধ ও বিস্মিত।

সেখানে আরো বলা হয়, ডিআরইউ নেতৃবৃন্দ মনে করেন, নিষেধাজ্ঞার মাধ্যমে ঢালাওভাবে তথ্য না দেওয়ার বিষয়টি তথ্য অধিকার আইনের সঙ্গে সুস্পষ্টভাবে সাংঘর্ষিক। এ ধরনের নির্দেশনা অবাধ তথ্য প্রদানের ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি এবং দুর্নীতিকে উৎসাহিত করবে। নিষেধাজ্ঞাটি কেবল অবাধ তথ্য প্রবাহের অন্তরায় নয় বরং স্বাধীন সাংবাদিকতার ক্ষেত্রেও সুস্পষ্ট হস্তক্ষেপ ও স্বেচ্ছাচারিতার বহিঃপ্রকাশ।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরিস্থিতি মারাত্মক আকার ধারণ করায় সারাদেশে জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এ পরিস্থিতিতে সম্মুখসারির যোদ্ধা হিসেবে প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার গণমাধ্যম কর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে হাসপাতালের বিদ্যমান সক্ষমতা এবং স্বাস্থ্য সেবার নানা বিষয় তুলে ধরে সংকট মোকাবিলায় সরকারের নীতিনির্ধারকদের পরিকল্পনা প্রণয়নে সহায়তা করছেন। একইসঙ্গে, তারা সাধারণ জনগণকে সচেতন ও সাবধান করে তুলতে ভূমিকা রাখছেন।

এ পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য খাতের অনিয়ম, অপকর্ম ও ব্যর্থতা ঢেকে রাখতেই তথ্য প্রদানে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে বলে মনে করেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

তাই তারা অবিলম্বে এ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

পুরাতন সংবাদ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১