• রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
সিয়াম হত্যার ৮ আসামিই মেঘনার  মেঘনায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা দপ্তরের কর্মকর্তা -কর্মচারীদের কর্মবিরতি কুমিল্লার বাঙ্গরায় পুলিশের উপর হামলা করে আসামি ছিনতাই ব্রাহ্মণপাড়া ভারত সীমান্তে বাংলাদেশি যুবকের লাশ উদ্ধার কুমিল্লায় কিশোর অপরাধ ও মহাসড়কে ডাকাতি রোধে সর্বোচ্চ প্রাধান্য দিব : নবাগত পুলিশ সুপার  জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে ‘গুম-খুনে’র তদন্ত চায় বিএনপি এদেশের মাটিতে সবার সমান অধিকার : প্রধানমন্ত্রী মেঘনায় ভুল চিকিৎসায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ : তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে সাংবাদিককে হুমকি  মেঘনায় গামছা গলায় পেচিয়ে আ’লীগ নেতাকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যাচেষ্টা:থানাকে ব্যবস্থা নিতে ২৪ ঘন্টা আল্টিমেটাম মুক্তিযোদ্ধাদের

এলাকাভেদে সপ্তাহে এক দিন শিল্পকারখানা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত

রিপোর্টার : / ৩১ বার পঠিত
আপডেট টাইম : রবিবার, ৭ আগস্ট, ২০২২

৭ আগষ্ট ২০২২ইং, আজকের মেঘনা ডটকম,

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

লোডশেডিং কমাতে এলাকাভেদে সপ্তাহে একেক দিন একেক শিল্প এলাকায় শিল্পকারখানা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। আজ রোববার রাজধানীর বিদ্যুৎ ভবনে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এলাকাভেদে ছুটি যেবারেই হোক, সেটি সপ্তাহে একদিন হবে বলে বৈঠকে জানানো হয়।

সভাশেষে নিট পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিকেএমইএর সহসভাপতি ফজলে এহসান শামীম বলেন, আগে একেক এলাকায় সপ্তাহে এক দিন শিল্পকারখানা বন্ধ রাখার নিয়ম ছিল। মাঝে বিদ্যুৎ পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় আমরা শিল্পমালিকেরা সেটি মানতাম না। বর্তমান পরিস্থিতিতে প্রতিমন্ত্রী আবারও সপ্তাহে এক দিন কারখানা বন্ধ রাখতে অনুরোধ করেছেন। আমাদের তাতে কোনো আপত্তি নেই। আমরা শুধু আগের রুটিন অনুযায়ী কারখানা সাপ্তাহিক বন্ধ রাখার কথা বলেছি। দ্রুত সময়ের মধ্যে মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে নির্দেশনা দেবে।

ফজলে এহসান শামীম বলেন, প্রতিমন্ত্রী আমাদের জানিয়েছেন, আগামী অক্টোবর থেকে বিদ্যুৎ পরিস্থিতির উন্নতি হবে। তখন নতুন বিদ্যুৎকেন্দ্র চালু হবে। ভারত থেকেও বিদ্যুৎ আসবে। তা ছাড়া শীতের কারণে বিদ্যুতের চাহিদাও কম থাকবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী, তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর সহসভাপতি শহিদউল্লাহ আজিম, বস্ত্রকল মালিকদের সংগঠন বিটিএমএর পরিচালক রাজীব হায়দার প্রমুখ।

বিজিএমইএর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শহিদউল্লাহ আজিম বলেন, প্রতিমন্ত্রী আমাদের বললেন, পোশাক ও বস্ত্র কারখানা সপ্তাহে এক দিন বন্ধ রাখলে প্রায় ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ বাঁচবে। তাতে কি আমরা নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ পাব—প্রশ্ন করলে প্রতিমন্ত্রী আমাদের গ্যারান্টি দিতে পারেননি। তবে বলেছেন, পরিস্থিতির উন্নতি হবে। তারপর আমরা বিষয়টি মেনে নিয়েছি। গ্যাসচালিত ক্যাপটিভ জেনারেটরভিত্তিক কারখানা ও কাপড় ডায়িংয়ের কারখানায় প্রতিদিনই উৎপাদন চালানোর বিষয়ে আমরা বলেছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

পুরাতন সংবাদ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১